বৃহস্পতিবার১৫ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
Home / সংগঠনের সংবাদ / চট্টগ্রামে বিএনপির ২৭ মার্চ’র কর্মসূচি সফল করার লক্ষে মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের প্রস্তুতি সভা সম্পন্ন  

চট্টগ্রামে বিএনপির ২৭ মার্চ’র কর্মসূচি সফল করার লক্ষে মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের প্রস্তুতি সভা সম্পন্ন  

ডেস্ক রিপোর্ট : চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির আহবায়ক ডাঃ শাহাদাত হোসেন বলেছেন, জাতির একটি চরম ক্রান্তিলগ্নে আমাদের জাতীয় জীবনে আবির্ভাব হয় জিয়াউর রহমানের। অসীম সাহসিকতা, দূরদর্শিতা ও প্রজ্ঞা নিয়ে তিনি সময়ের প্রয়োজনে আলোর দ্যুতি নিয়ে এগিয়ে এসে চট্টগ্রামের কালুরঘাট বেতার কেন্দ্র থেকে তাঁর কণ্ঠে স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছিলেন, যা জাতিকে উজ্জীবিত করেছিল।

তিনি বলেন, শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের মুক্তিযুদ্ধের খেতাব কারও দয়ার দান নয়, এটা তার অর্জন। মুক্তিযুদ্ধে সর্বোচ্চ অবদান রেখেই তিনি এই খেতাব অর্জন করেছেন। যথার্থভাবেই বাংলাদেশ সরকার তাকে মূল্যায়িত করেছেন। কারণ তিনি জাতির ক্রান্তিকালে জাতিকে মুক্তির দিশা দিয়েছেন।

ডা. শাহাদাত বলেন, জন্মলগ্ন থেকে বিএনপি গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় এবং অর্থনৈতিক উন্নয়নে অসামান্য ভূমিকা রাখে, যা দেশকে উত্তরোত্তরভাবে উন্নতির দিকে নিয়ে যায়। আজ স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীর মুহূর্তে ইতিহাস বিকৃত করে সরকার নতুন প্রজন্মকে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা করছে। শহীদ জিয়াকে বাদ দিয়ে বাংলাদেশের ইতিহাস লিখা সম্ভব নয়। তিনি তার কীর্তির মাধ্যমে জাতির হৃদয়ে বেঁচে থাকবেন আপন মহিমায়।

২২ মার্চ (সোমবার) বিকেলে নাসিমন ভবনস্থ দলীয় কার্যালয়ে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে ২৭ মার্চ কালুরঘাট বেতার কেন্দ্রে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন কর্মসূচি সফল করার লক্ষে চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের প্রস্তুতি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
প্রধান বক্তার বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব আবুল হাশেম বক্কর বলেন, বিএনপি এবং জিয়া পরিবার আওয়ামীলীগের রাজনীতির মূল উপজীব্য। বিএনপির নেতাকর্মীদের হামলা-মামলা দিয়ে আর গ্রেফতার-নির্যাতন করে ক্ষমতা আঁকড়ে ধরাই তাদের একমাত্র লক্ষ্য। জনগণের নাগরিক সমস্যা সমাধানে সরকারের ভ্রুক্ষেপ নেই। নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের ক্রমাগত উর্ধগতি জনগণের নাভিশ্বাস উঠেছে। খুন-গুম, দুর্নীতি, লুটপাট ছাড়া এই সরকারের কোন অর্জন নেই। তাই সরকার নিজেদের দুর্নীতি ঢাকতে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান এর খেতাব বাতিলের মত ঘৃণ্য ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। জনগণকে সাথে নিয়ে  তাদের সকল ষড়যন্ত্র প্রতিহত করা হবে।

সভাপতির বক্তব্যে  চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি এইচ এম রাশেদ খান বলেন, শহীদ জিয়ার আদর্শ, দেশপ্রেম, সততা ও কর্মনিষ্ঠা আজ জাতীয়তাবাদী শক্তির প্রেরণার উৎস। স্বাধীনতার ৫০ বছরে এসে জিয়াউর রহমানের খেতাব বাতিলের ষড়যন্ত্র সরকারের নগ্ন রাজনীতির বহিঃপ্রকাশ। জনগণের অধিকার আদায়ে জিয়ার আদর্শের সৈনিকেরা রাজপথে আন্দোলন সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছে। অবিলম্বে শহীদ জিয়ার খেতাব বাতিলের ষড়যন্ত্র বন্ধ, বেগম খালেদা জিয়ার মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও গৃহবন্দী থেকে নি:শর্ত মুক্তি এবং তারেক রহমানের বিরুদ্ধে সকল রাষ্ট্রীয় ষড়যন্ত্র বন্ধ করা না হলে জনগণকে সাথে নিয়ে  রাজপথে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলা হবে।

চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক বেলায়েত হোসেন বুলুর সঞ্চালনায় উক্ত সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সহ-সভাপতি আসাদুজ্জামান দিদার, হারুন আল রশিদ, মামুনুর রহমান, মঈনউদ্দীন রাশেদ, হারুনুর রশিদ, সাংগঠনিক সম্পাদক জিয়াউর রহমান জিয়া, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক আলী মুর্তজা খান, যুগ্ম সম্পাদক জমির উদ্দিন নাহিদ, সিরাজুল ইসলাম ভুইয়া, জসিম উদ্দিন রকি, আবু বক্কর রাজু, সহ-সম্পাদক আব্দুল হাই, এম এ হানিফ, মনির হোসেন, ইমরান চৌধুরী বাবলু, মোখলেছুর রহমান, মোঃ হাসান।

উপস্থিত ছিলেন,  সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ইসহাক খান, মোঃ লিটন, সাইফুল আলম দিপু, শাহাজাহান বাদশা, সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য নুর আলম, জাহাঙ্গীর হোসেন, সহ- সম্পাদক জহির ইসলাম, মোঃ রনি, জাকির হোসেন মিশু, সদস্য মেহেদী হাসান, সাজ্জাদ হোসেন খান সহ মহানগর, থানা ও ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতৃবৃন্দ।

স,ব/ আর,এস