মঙ্গলবার২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
Home / সর্বশেষ / বিশ্বব্যাপী কার্বন নিঃসরণ বৃদ্ধির প্রতিবাদ এবং কার্বন নিঃসরণ হ্রাসের প্রতিশ্রুতি চেয়ে মানববন্ধন

বিশ্বব্যাপী কার্বন নিঃসরণ বৃদ্ধির প্রতিবাদ এবং কার্বন নিঃসরণ হ্রাসের প্রতিশ্রুতি চেয়ে মানববন্ধন

ডেস্ক রিপোর্ট  : সেন্টার ফর পার্টিসিপেটরি রিসার্চ অ্যান্ড ডেভ্লপমেন্ট ঢাকা, এবং এনভায়রমেন্টাল এওয়ারনেজ অ্যান্ড রিসার্চ নেটওয়ার্ক চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যেগে গত বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব চত্বরে বিশ্বব্যাপী কার্বন নিঃসরণ বৃদ্ধির প্রতিবাদে এবং কার্বন নিঃসরণ হ্রাসের প্রতিশ্রুতি চেয়ে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্সটিটিউট অব ফরেস্ট্রি অ্যান্ড এনভায়রন মেন্টাল সায়েন্স এর অধ্যাপক ড. খালেদ মিসবাহুজ্জামান বলেন- বৈশ্বিক উষ্ণায়ন, কার্বন নির্গমন জলবায়ু পরিবর্তন ইত্যাদি শব্দগুলোর সাথে আমরা পরিচিত হয়েছি বিগত কয়েক দশকে, কিন্তু এখনও এসব বিষয়ে অনেক সীমাবদ্ধতা রয়ে গেছে।
তিনি আরো বলেন- বর্তমান কার্বন নির্গমনের পরিমান অধিক পরিমানে বেড়ে গেছে, এবং আমাদের শিক্ষিত সমাজের পাশাপাশি সবাইকে একসাথে শূন্য কার্বন নিউট্রাল ইকনোমি দিকে এগিয়ে যেতে হবে। পাশাপাশি জলবায়ু পরিবর্তন এবং কার্বন নির্গমনরোধ করতে শুধুমাত্র সরকারের না, শিল্পপতি, ব্যবসায়ী এবং জনগনকেও এগিয়ে আসতে হবে।
বিশেষ অতিথি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড. অলক পাল বলেন- চট্টগ্রাম শহরে দিনদিন কার্বন নিঃসরণের পরিমান বেড়েই চলেছে। পাশাপাশি গাছপালা এবং পাহাড়ের সংখ্যাও অধিক হারে কমে যাচ্ছে। যার ফলশ্রুতিতে জনস্বাস্থ্য হুমকির মুখে পড়ছে।  চট্টগ্রাম শহরে এবং তার আশেপাশে যে ইটভাটাগুলো রয়েছে তা থেকে প্রতিনিয়ত কয়েকশ টন কার্বন নিঃসরণ করছে।  এই কার্বন নিঃসরণের ধারা কমাতে হলে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন, বিআরটি এবং বন অধিদপ্তরের আরো হস্তক্ষেপ দরকার।
প্রথম আলোর সিনিয়র সাংবাদিক প্রণব বল বলেন, ‘উন্নয়ন প্রকল্পে যে হারে গাছকাটা হচ্ছে সেভাবে গাছ রোপন করা হচ্ছে না, এই বিষয়ে আলোকপাত করেন।’
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের এনভায়রমেন্টাল এওয়ারনেজ অ্যান্ড রিসার্চ নেটওয়ার্ক এর সমন্বয়কারী মো: জাকারিয়া হাসানের সভাপতিত্বে এবং প্রার্থী ঘোষের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে আরো বক্তব্য রাখেন- শিক্ষার্থী রফিক আহমেদ সোবহানি, সাহেদুল আলম,  নবনিতা সরকার প্রমূখ।
স,ব/আর,এস